ফিফা বিশ্বকাপ গেম

ফিফা বিশ্বকাপ গেম | FIFA কিভাবে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ইনকাম করে ?

খেলাধুলা

ফিফা বিশ্বকাপ গেম | FIFA কিভাবে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ইনকাম করে ? বর্তমানে দুনিয়াতে সব থেকে বড় টুর্নামেন্ট বা আয়োজন যাই বলেন না কেন সেটা হচ্ছে ফিফা । ফিফা কে ওয়ার্ল্ড লেটেস্ট শো হিসেবে ধরা হয় । এবার দেওয়া তথ্য বলতে প্রায় পৃথিবীতে থাকা মানুষের অর্ধেক মানুষ ফিফা বিশ্বকাপ খেলা একসাথে উপভোগ করে । তো বন্ধুরা আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে জানবো ফিফা কিভাবে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার ইনকাম করছে ।

ফিফা বিশ্বকাপ গেম | ফিফা একাধিক ভাবে ইনকাম করে

১ । ব্রডকাস্ট রাইট: ফুটবল বিশ্বকাপ যখন শুরু হয় তখন পৃথিবীর প্রায় সব দেশের মানুষই একসাথে খেলা দেখে আর এই খেলা দেখার জন্য বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ফিফা কে টাকা দেয় যাতে তাদের চ্যানেলে তারা ফিফা খেলার লাইভ ব্রডকাস্ট করতে পারে । ফিফা বিশ্বকাপ প্রায় পৃথিবীর ১৪০ প্লাস দেশ দেখানো হয় 140 টার দেশের বিভিন্ন মিডিয়া বা টিভি চ্যানেল ফিফাকে টাকা দিয়ে থাকে তাদের চ্যানেলে ফিফা ম্যাচ লাইভ দেখানোর জন্য ।

২ । স্পন্সর : এখন যেহেতু বিশ্বকাপ খেলা প্রায় পৃথিবীর অর্ধেক মানুষ একসাথে দেখছে সেতু প্রত্যেকটা কোম্পানির যাবে তাদের অ্যাডভার্টাস বা তাদের কোম্পানির নাম যেন ম্যাচের মাঝখানে বা ম্যাচের সাথে দর্শকদের দেখানো যায় তাহলে তারা বেশি মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারবে বেশি পরিচিত লাভ করতে পারবে । বিভিন্ন ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি তাদের অ্যাড দেখানোর জন্য ফিফাকে যে টাকা দেয় সেটাই হচ্ছে স্পন্সর । ফিফার দুই রকম স্পন্সর ও হয়ে থাকে যেমন :
১ । ফিফার পার্টনার কোম্পানি যারা ফিভার সাথে পার্টনার ভাবে কাজ করে যেমন অ্যাডিডাস কোকোকোলা ওয়ান্ডার হুন্দাই কাতার এয়ারওয়েজ সহ আরো অনেক কোম্পানি ।

২ । বিশ্বকাপ স্পন্স : যখন বিশ্বকাপ ম্যাচ চলে শুধুমাত্র তখনই যে সকল স্পন্সর কম দেওয়া হয় সেক্ষেত্রে বিশ্বকাপ স্পন্সর বলা হচ্ছে ।

৩ । টিকেট : বিশ্বকাপ ম্যাচ চলাকালীন স্টেডিয়ামে ঢোকার জন্য যে টিকেট কেনা হয় সেই টিকেটের টাকা সরাসরি ফিফার কাছে যায় ।

FIFA কিভাবে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ইনকাম করে ?

৪ । গ্র্যান্ড লাইসেন্স রাইটস : যেমন আপনি যদি কোন ফুটবলারের ভিডিও গেম বানান এবং আপনি যদি আপনার গেমে ফিফার লোগো ব্যবহার করতে চান তাহলে সেই লোগো ব্যবহার করার জন্য ফিফা কে টাকা দিতে হবে ।

এছাড়া ফিফা আরব ছোট ছোট বিভিন্ন মাধ্যম থেকে ইনকাম করতে পারে যেমন ফিফা মুভি রাইস বিক্রি করা ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ আয়োজন করা সহ আরো অনেক মাধ্যম থেকে টাকা আসে ।

ফিফা তো মিলন মিলন বা মিলন মিলন ডলার ইনকাম করছে তাহলে এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে তাহলে ফিফা খরচ কি ফিফা কোন খরচ আছে কিনা ?


সেভাবে দেখতে গেলে ফিফার কোন বড় ধরনের খরচ নেই কোনো ম্যাচ চালানোর জন্য । সাধারণত কোন দেশে যখন কোন ম্যাচের আয়োজন করা হয় তখন সেই ম্যাচ চলার জন্য স্টেডিয়াম বানান থেকে শুরু করে সকল ধরনের খরচ সেই দেশই বহন করে থাকে এখানে ফিফা নিজে কোন টাকা ইনভেস্ট করে না । ফিফার খরচের মধ্য অন্যতম একটি মাত্র খরচ হচ্ছে ফিভার প্রাইস মানি । বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন বা রানার্সআপ দলসহ অন্যান্য দলকে যে প্রাইস মানি দেওয়া হয় শুধুমাত্র সেই ক্ষণস্থায়ী ফিফা বহন করে থাকে ।

আরো জানুন- আইপিএল কিভাবে কোটি কোটি টাকা ইনকাম করে ? আইপিএল এর বিজনেস মডেল।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *